আমতলীতে পরিত্যক্ত অবস্থায় জীবিত এক কন্যা নবজাতক উদ্ধার।

বরগুনা আমতলী পৌর শহরের ৭ নং ওয়ার্ডের হাওলাদার বাড়ী জামে মসজিদের পশ্চিম পাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় জীবিত এক কন্যা নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে।

পরে তাকে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরি বিভাগে নিয়ে যান ইমরান গাজীর স্ত্রী হনুফা বেগম। ইমরান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে জামাই হোটেলের মালিক।

কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই নবজাতকের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী মোঃ নেছার উদ্দিন বলেন, শুক্রবার ফজরের নামাজ আদায় করার জন্য হাওলাদার বাড়ির মসজিদে যাচ্ছিলাম এ সময় নাসির উদ্দিন আড়তদারের বাসার দরজার সামনের দিকের বসার বেঞ্চের নিচ থেকে শিশুর কান্নার আওয়াজ শুনতে পাই।

তখন আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে নবজাতক কন্যাশিশুকে পড়ে থাকতে দেখি। পরে আশেপাশের স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় শিশুটিকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাঃ মিজানুর রহমান বলেন, শিশুটিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আমতলী থানার এসআই মোঃ আবুল বাশার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কে বা কারা তাকে ওই স্থানে ফেলে গেছে তা জানা যায়নি। শিশুটির পরিচয় জানতে অনুসন্ধান চলছে।


মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে