মঠবারিয়ায় বাবা কর্তৃক নিজ মেয়েকে ধর্ষনের মামলায় ধর্ষক পিতা রাজাধানী থেকে আটক।

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় মেয়ে (১৪) কে ধর্ষণের অভিযোগে মায়ের মামলায় পলাতক লম্পট বাবা সেলিম বেপারী (৫০) কে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।

মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার এসআই মানিক ২৫ জুলাই শনিবার বিকেলে ঢাকা যাত্রাবাড়ি থানা পুলিশের সহযোগিতায় যাত্রবাড়ি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে রোববার সকালে মঠবাড়িয়া থানায় হাজির করে। গত ১৯ জুলাই রোববার রাতে উপজেলার ঘোপখালী গ্রামের ওই ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে স্বামী সেলিম বেপারী বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ঘোপখালী গ্রামের রব বেপারীর পুত্র ৫ সন্তানের জনক লম্পট সেলিম বেপারী তার নিজের মেয়ের ওপর মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালান। এক পর্যায়ে চলতি মাসের ৫ জুলাই লম্পট সেলিম তার স্ত্রীকে কৌশলে বাজারে পাঠায়।

এসময় ঘরে মেয়েকে মুখ চেপে ধরে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে লম্পট সেলিম। পরে বাজার থেকে ফিরে এলে মেয়েটি তার মায়ের কাছে ধর্ষণের ঘটনাটি খুলে বলে।

এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা গত ১৯ জুলাই রোববার রাতে বাদী হয়ে স্বামী সেলিম বেপারী বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মো. মাসুদুজ্জামান লম্পট সেলিমকে গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পাষন্ড সেলিম মেয়েকে ধর্ষনের কথা স্বীকার করে। রোববার দুপুরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে