প্রেমিকাকে বউ মেনে নিতে অস্বীকৃতি; বাবা-মার সাথে অভিমান করে যুবকের আত্মহত্যা

বরগুনা আমতলী উপজেলার চাওড়া ইউনিয়নের পতাকাটা গ্রামে প্রেমের বিয়ে মেনে না নেয়ায় বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে বেলালা আকন নামে এক যুবক গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সোমবার রাতে উপজেলার চাওড়া ইউনিয়নের পাতাকাটা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত বেলাল পাতাকাটা গ্রামের দেলোয়ার আকনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বেলাল আকন গত ৫ বছর ধরে ঢাকায় গার্মেন্টেসে কাজ করে আসছে। গার্মেন্টেসে কর্মরত অবস্থায় ঝালকাঠি জেলার আরেক গার্মেন্টেস কর্মী মিলি আক্তারের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক হয়। বেলাল বাবা-মাকে না জানিয়ে মিলিকে বিয়ে করেন। ঈদুল আজহা উপলক্ষে বেলাল বাড়ীতে আসেন। বেলালের বাবা-মা বিয়ের কথা জেনে ক্ষুব্ধ হন। তারা এ বিয়ে মেনে নিতে নারাজ। এ নিয়ে বেলালের সাথে বাবা-মায়ের কথা কাটাকাটি হয়। এতে বাবা-মায়ের ওপর অভিমান করে গত দুই-তিন দিন ধরে বেলাল ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া করেনি।

একপর্যায়ে সোমবার রাতে মামা লিটন মুসল্লির ঘরের পিছনে রেইন্টি গাছের সঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে সে। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে খোঁজাখুঁজি করার পরে রেইন্টি গাছের সাথে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় দেখতে পায়। পরক্ষণে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বেলালের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

আমতলী থানার ওসি শাহ আলম হাওলাদার বলেন, বেলালের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এই ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।


মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে