বিকাশে টাকা পাবেন শিক্ষার্থীরা।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেছেন, মহামারি করোনার কারণে দেশে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে এ বছর কেন্দ্রীয়ভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত না হওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দেওয়া হবে না, তবে উপবৃত্তি দেওয়া হবে।


জানা যায়, ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে দ্বাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ৩ লাখ ২৬ হাজার শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি দিচ্ছে সরকার। সরাসরি বৃত্তির টাকা শিক্ষার্থীদের মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে পাঠাতে এসব শিক্ষার্থীদের বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। তবে অনেক শিক্ষার্থীর বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলা না হওয়ায় উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করা যাচ্ছে না। তাই জরুরি ভিত্তিতে এসব শিক্ষার্থীর বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার নির্দেশ দিয়েছে এসইডিপি প্রকল্পের সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এসব নির্দেশনা দিয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের চিঠি পাঠানো হয়েছে।
চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলা হয়ে গেলে বিকাশ প্রতিনিধি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছ থেকে প্রত্যয়ন পত্র নেবেন। তা বিকাশ কর্তৃপক্ষ সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচির প্রধান কার্যালয়ে জমা দেবেন। আর স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের বিকাশ একাউন্ট খোলার ব্যবস্থা নিতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে।
এসইডিপি প্রকল্পের সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি থেকে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের পাঠানো চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, যেসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলা হয়নি তাদের জরুরি ভিত্তিতে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। বিকাশ কর্তৃপক্ষ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দের সাথে যোগাযোগ করে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খুলবেন। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলার বিষয়ে প্রতিষ্ঠান প্রধান ও বিকাশ প্রতিনিধির সমন্বয় করবেন।

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে