কুয়াকাটায় বিরল প্রজাতির তক্ষকসহ পাচারকারী আটক।

পর্যটন নগরী কুয়াকাটায় একটি আবাসিক হোটেল থেকে বিরল প্রজাতির তক্ষকসহ পাচারকারী কবির হোসেন (৫৫)কে গ্রেপ্তার করেছে মহিপুর থানা পুলিশ। শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল কুয়াকাটার আবাসিক হোটেল পাঁচতারা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তবে এ পাচারকারী দলের অন্য সদস্যরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।


মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান জানান, গ্রেপ্তারকৃত কবির হোসেন দীর্ঘদিন ধরে এ বণ্য প্রানী পাচারের সাথে জড়িত। কুয়াকাটার একটি সংঘবদ্ধ চক্রের কাছে এটি বিক্রির জন্য নিয়ে এসে পাঁচতারা হোটেলের বি-৬নং কক্ষে অবস্থান নেয়। মহিপুর ওসি (তদন্ত ) মিজানুর রহমানের নেতৃত্ব এস আই বেলাল,এস আই সাইদুর রহমানসহ পুলিশের একটি টিম রাতেই অভিযান চালিয়ে তাকে তক্ষকসহ গ্রেপ্তার করে। তবে উদ্ধার করা তক্ষকটি কত টাকা দাম বা কোথায় পাচার করার চেষ্টা চলছিলো বিষয়টি তদন্ত চলছে বলে তিঁনি জানান। কবির হোসেন ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া থানার কালন্ডি গ্রামের আমজেদ আকনের ছেলে।


পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, শনিবার দুপুরে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে উদ্ধার করা তক্ষকটি বন বিভাগের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। এ ঘটনায় মহিপুর থানায় কবির হোসেনকে প্রধান আসামী করে অজ্ঞাত ৫ জনের নামে বণ্য প্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইনে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে।

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে