ভারতীয় ট্রেনে ধূমপানে হবে না জেল, নতুন প্রস্তাব পাঠাল ভারতীয় রেলওয়ে।

ভারতীয় রেল প্রস্তাব দিয়েছে ট্রেনের মধ্যে ভিক্ষাবৃত্তি ও ধূমপান করা আর ক্রিমিন্যাল অফেন্স নয়। রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতীয় রেল খুব দ্রুত এই নিয়ম আনতে চলেছে যেখানে সিগারেট খাওয়া ও ভিক্ষাকে আর অপরাধমূলক ক্যাটাগরিতে রাখা হবে না। এর মানে এই অপরাধের জন্য আর জেলের শাস্তি দেওয়া হবে না।

রেলওয়ের ১৪৪(২) ধারা অনুযায়ী ট্রেনের কামরার মধ্যে ভিক্ষাবৃত্তি, ধূমপান দুটোই অপরাধ। এই অপরাধ করলে জেল ও জরিমানা দুটোই ধার্য করা যায়। ভিক্ষাবৃত্তির জন্য ২০০০ টাকা জরিমানা ও ১২ মাস অবধি জেল হতে পারে। যিনি ভিক্ষা দিচ্ছেন বা নিচ্ছেন ২ জনেরই শাস্তি। ধূমপানের জন্য ধার্য সেকশনটি হল ১৬৭। এর অনুযায়ী ১০০ টাকার জরিমানা যদি কোনও সহযাত্রী রিপোর্ট করে তাহলে বা যদি রেল পুলিশ ধরে দুক্ষেত্রেই।

যদি নতুন প্রস্তাব পাস হয় তাহলে জেলের বিষয়টা বন্ধ করে দেয়া হবে। তাহলে একটাই প্রশ্ন এবার থেকে কী ট্রেনের কামরায় দেদার সিগারেট খাওয়া চলতেই পারে।

তবে ধূমপানে আরও বড় শাস্তি হবে- অর্থাৎ আরও বেশি টাকার জরিমানা হবে। ভারতীয় রেলওয়ে ভীষণভাবেই এই দুটি কাজই একেবারে বন্ধ করতে চায়। তবে জেলের বদলে আর্থিক জরিমানাটা অনেকটাই বাড়ানো হবে।

তবে পেনাল্টি ঠিক কতটা লাগানো হবে তার মাপকাঠি সম্পর্কে ধারণা নেই। ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা ১০০০ টাকা অবধি পেনাল্টি বাড়ানো হতে পারে। এমনকি তার চেয়ে বেশিও জরিমানা হতে পারে।

রেলওয়ে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ‘এটার মানে মোটেও এটা নয় যে রেলওয়ে ট্রেনে ভিক্ষাবৃত্তি বা ধূমপানকে বাড়াতে চাইছে। ট্রেন বা রেলওয়ে প্ল্যাটফর্মে এই কাজকে অনুমতি দেওয়া হবে না। ক্রিমিন্যাল অফেন্স না হলেও এটা আইনি হবে না।’

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে