দীর্ঘ ১২ বছর ধরে শিকলে বাঁধা জীবন,মানসিক প্রতিবন্ধী শাহজালালের 


ঘরে লোহার শিকলে বাঁধা মানসিক প্রতিবন্ধী শাহজালাল  আবু তাহের


দুই পায়ে পরানো হয়েছে লোহার চাকতি লাগানো শিকল। আর দুই হাত শিকলে বেঁধে দেওয়া হয়েছে তালা। ছয় ফুট দৈর্ঘ্য ও চার ফুট প্রস্থের ছোট একটি ছাপরাঘরে কাটছে তাঁর জীবন। এভাবেই কেটে গেছে তাঁর এক যুগ। শিকলবন্দী ওই ব্যক্তির নাম মো. শাহজালাল (৪০)। তিনি একজন মানসিক প্রতিবন্ধী।

ফেনীর দাগনভূঁইয়া উপজেলার মাতুভূঁইয়া ইউনিয়নের মোমারিজপুর গ্রামের আবদুল হকের ছেলে শাহজালাল। ফেনী শহর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে সম্প্রতি গ্রামের ওই বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, ভাঙা বাঁশের বেড়া ও টিনের ছাউনি দেওয়া ঘরে শিকলবন্দী অবস্থায় বসে আছেন শাহজালাল।

তার ঘরে আছে একটি চৌকি ও একটি চেয়ার। চৌকির ওপর ছেঁড়া ও আধা ভেজা কাঁথায় জড়সড় হয়ে বসে ছিলেন তিনি। তাঁর পরনে ছিল ছেঁড়া ময়লা শার্ট ও লুঙ্গি। ঘরে কেউ ঢুকলে তাঁর নাকে লাগবে দুর্গন্ধ। শাহজালালকে প্রস্রাব-পায়খানা সারতে হয় ঘরের পাশেই। চেয়ারে রাখা ছেঁড়া ও ময়লা কাঁথা দুর্গন্ধে ভরা। কেউ তাঁকে খাবার খাইয়ে দিলে তাঁর ক্ষুধা মেটে, নতুবা থাকতে হয় উপোস।

#প্রথম আলো থেকে নেওয়া

১ টি মন্তব্য

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে