মানবতার ফেরিওয়ালা

Fatima Parvin এর ফেসবুক পোস্ট থেকে নেয়া।

তারা মানবতার ফেরিওয়ালা, করোনা মোকাবিলায় সম্মুখ যোদ্ধা। মানুষের জীবনের নিরাপত্তার কথা ভেবে যখন লকডাউন শুরু হলো আমাদের জেলায়, ঠিক তখনই পাথরঘাটা উপজেলার মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষদের খুঁজে বের করে খাবার বিতরণে এগিয়ে আসলো তারা। নিজেদের প্রিয় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনার সাথে ঝাপিয়ে পড়া প্রশিক্ষণহীন তাদের মহৎ ও দুঃসাহসিক লড়াই অভিযান মানবিকতার সবচেয়ে বড় দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো। তাঁদের মনোবল ও দেশ প্রেমের শানিত অস্ত্র নিয়ে তাঁরা যেভাবে নিজেদের নিয়োজিত করেছেন আর্তমানবতাকে কাজে লাগিয়ে করোনার যুদ্ধে, তা আগামী প্রজন্মের জন্য একটি শিক্ষনীয় বিষয়। প্রথমে নিজেদের সঞ্চয় ব্যয় করে খাবার ক্রয়, যখন নিজেদের সঞ্চয় সমাপ্ত তখন অনেকটাই ভেঙ্গে পড়েছিল,নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই এগিয়ে এসেছেন, এখনো সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। সহযোগিতা করেছেন বরগুনা-২ আসনের সাংসদ মহোদয়। আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি সবাইকে।মানসিক ভারসাম্যহীন ওই অসহায় মানুষগুলো তিনবেলা খাবারের সময় জানেন না,শুধু জানে ক্ষুধা পেলেই ওদের জন্য অপেক্ষার করা।খাবার ও পোশাক বিতরণের আজ ১০০শত দিবসে পদার্পণ করলো। মানবিকতার হৃদয়বৃত্তি থেকে তোমাদের স্যালুট, দোয়া রইল। এগিয়ে যাও তোমাদের সাথেই আছি।

Fatima Parvin এর ফেসবুক পোস্ট থেকে নেয়া।

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে