জামাইকে শ্বশুরবাড়িতে ডেকে নিয়ে বিষ খাইয়ে হত্যা!

শ্বশুরবাড়িতে ডেকে বিষ খাইয়ে জামাইকে খুন!
সন্তানের কান্নার কথা বলে এক ব্যক্তিকে শ্বশুরবাড়িতে ডেকে নিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছে। রোববার বিকালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই ব্যক্তি মারা যান।

মৃতের নাম সাহাজান সেখ, বয়স ৩৭ বছর। তার বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রাম থানার উক্তা গ্রামে।
মৃতের পরিবারের সদস্যরা জানান, বছর সাতেক আগে সাহাজানের সঙ্গে বীরভূমের বোলপুর থানার ঘিদহ এলাকার ফারহানা বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয়। তাদের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। অভিযোগ গত বছর ফারহানার সঙ্গে অন্য একজনের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই ঘটনার পর থেকেই সাহাজান ও ফারহানার মধ্যে সম্পর্কে অবনতি হয়। ফারহানার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে বিবাদের জেরে বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়।
দু’দফায় উভয় বৈঠকে মিমাংসার চেষ্টা হয়। কিন্তু তাতে কোন সমাধান সূত্র বের হয়নি। এরপর থেকে তারা আলাদা থাকতেন।
ছেলের পরিবারের অভিযোগ, দিনকয়েক আগে মেয়ে কান্নাকটি করছে বলে ফারহানা ফোন করে সাহাজানকে ডেকে পাঠায়। সাহাজান বোলপুর যাওয়ার পর আর তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি পরিবারের লোকজন। বোলপুর থানায় এই নিয়ে নিখোঁজ ডায়েরিও করা হয়।
বুধবার সাহাজান এক আত্মীয়কে ফোন করে জানায়, শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে মারধর করে মুখে বিষ ঢেলে বাথরুমে আটকে রেখেছে। সঙ্গে সঙ্গে সাহাজানের বাড়ির লোকজন সেখানে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে।
বৃহঃস্পতিবার সাহাজানকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। রবিবার শাহজাহানের মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় তদন্তে নেমেছে বর্ধমান জেলা পুলিশ।

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে