মহিপুরে ইউপি নির্বাচনে-স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর কাছে নৌকার পরাজয়।

জহির রায়হান, কুয়াকাটা প্রতিনিধি:


প্রশাসনের কঠোর নজরদারিতে কোন প্রকার অপ্রতিকর ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পটুয়াখালী জেলার মহিপুর থানা সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ মঙ্গলবার সম্পন্ন হয়েছে।

ইউনিয়নে মোট ভোটার ছিল ১৪ হাজার ৭ শ’ ৬৯। মোট ভোটারের অর্ধেক নারী ভোটার। এর মধ্যে ১১ হাজার ৮শ’ ৭৩ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। এতে শতকরা ৮০ ভাগ ভোটার ভোট দিয়েছেন। আনারস মার্কার স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউনিয়ন বিএনপির সহ সভাপতি হাজী ফজলু গাজী ৭ হাজার ৮১ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

অপরদিকে আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা মার্কার প্রার্থী ৪ হাজার ৪ শ’ ৮১ ভোট পেয়েছেন। নৌকা মার্কার প্রতীক আঃ মালেক আকন্দকে ২ হাজার ৬ শ’ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে আনারস মার্কার স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ইউনিয়ন বিএনপির সহ সভাপতি হাজী ফজলু গাজী বেসরকারি ভাবে নির্বচিত হয়েছেন বলে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার আব্দুল রশিদ জানিয়েছেন।


মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকাল নয়টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিরামহীনভাবে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত চলে। ৯টি ভোট কেন্দ্রে ৪২টি বুথে ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন বলে ভোটারদের অভিমত ছিল। এমন ভোটের আয়োজন সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি তাঁরা কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।
১৮ বর্গ কি. মিঃ এলাকা জুড়ে জেলার মহিপুর ইউনিয়নে এবারের নির্বাচনে ৯ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ৪২জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারসহ ৮৪ জন পোলিং অফিসার ছিলেন। এছাড়া প্রতিটি ভোট কেন্দ্রের জন্য ৩জন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশের স্ট্রাইকিং ফোর্স, ১শ’ ৭১ জন আনসার সদস্যসহ একাধিক আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা নির্বাচনী মাঠে দায়িত্ব পালন করেছেন।

যে কোন ধরনের সহিংসতা এড়াতে ভোট কেন্দ্রগুলোতে নেওয়া হয়েছিল ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী, ৩৪ জন মেম্বার প্রার্থী এবং ৮ জন নারী মেম্বার প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে লড়াই করেছেন।

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে