বরগুনায় ডক্টরস কেয়ার ক্লিনিকের ফুলমালা আত্মহত্যার আসল ঘটনা -বিস্তারিত

অনলাইন ডেস্ক,

বরগুনা ডাক্টরস কেয়ারের পরিচালক ডাক্তার আব্দুল খালেকের গৃহ পরিচারিকা ফুলমালা-(১৩) নামে, শুক্রবার (১৭ জুলাই)মধ্যরাতে আত্মহত্যা করেছেন।

খোজ নিয়ে জানা যায়, (সিমাও ফুলমালা) ২ বোন তাদের বাড়ি শরিয়তপুর।
ফুলমালার চাচাতো ভাই বরগুনায় টাইসের কাজ করতো তখন খালেক ডাক্তারের পরিবারে সহযোগিতা করা এবং বাসা খালি খালি লাগায় মানুষের চাহিদা দেখায় তখন ফুলমালার চাচাতো ভাই তার বোনদের কথা বলে এবং একসাথে ২ বোন সিমা ও ফুলমালা তার কাছে মেয়ের আদরেই থাকে, যখন তারা আসে তখন আনুমানিক সিমার বয়স ১৩ ফুলমালা ৬ সিমাকে বড় করে খালেক ডাক্তার নিজেই বিবাহ দেয়। এবং তার স্বামীকে চাকরির ব্যাবস্হা করে দেয়। সিমার শ্বশুরবাড়ি আমতলি এবং সেই ঘরে বাচ্চাও আছে।

আরো জানা যায়, খালেক ডাক্তার প্রতি মাসে মেয়েদের কিছু টাকা দিত বাবা মায়ের জন্য এবং ভবিষ্যতের জন্য কিছু টাকা জমানো হয় তাদের নামে তাদের মা বাবা মেয়ে তাদের সাথে কোন মনসালিন্য হতনা কারন খালেক ডাক্তারের ২ টি মেয়ে কোন ছেলে নাই এবং বাসায় শুধুমাত্র ফুলমালাই থাকে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, তবে তার বোনের বিবাহের পরে ফুলমালা একা থাকে এবং ফোন ব্যাবহার করে এবং কিছুদিন যাবৎ অনত্র কথা বলে।
ধারনা করা হচ্ছে ফোনে কথাবার্তা নিয়ে কিছু হয়েছে বিশেষ করে তিনি কখনো দরজা আটকিয়ে ঘুমায়নি এবং তার পায়ের নিচে বালতি পাওয়া গেছে। এবং পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার এবং একটি মোবাইল ফোন জব্দ করে।

ডক্টরস কেয়ার ক্লিনিকের ডাঃ খালেক সাহেবের বাসার কাজের মেয়ে ফুলমালার মৃর্ত্যুর ময়নাতদন্তে আত্মহত্যার রিপোর্ট এসেছে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডাঃ জয়রাজ হোসেন

১ টি মন্তব্য

মতামত দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে